দূষণের গ্রাসে তাজমহল, বসেছে এয়ার পিউরিফায়ার

নভেম্বর ৫, ২০১৯
দ্বারা Omar Faruque

দূষণ গ্রাস করেছে দিল্লি ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকাতে। এই দূষণের জেরে ক্ষতি হছে ভারতের প্রাচীন স্মৃতিসৌধের। দিনের পর দিন যে ভাবে দূষণের মাত্রা বেড়ে চলেছে তাতে তাজমহলকে বাঁচানোও এখন বড়সড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসনের কাছে।দিল্লি সহ উত্তর ভারতে ভয়াবহ দুষণ রোধের এখনও কোনও উত্তর নেই প্রশাসনের কাছে৷

মোঘল স্থাপত্যের অন্যতম স্মৃতি চিহ্নকে বায়ুদূষণের প্রকোপ থেকে বাঁচাতে তাজমহল চত্বরে বায়ু পরিশোধক ফিল্টার বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে উত্তর প্রদেশের দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। এই এয়ার পিউরিফায়ারটি ৩০০ মিটার ব্যাসার্ধের মধ্যে আট ঘণ্টার মধ্যে প্রায় ১৫ লক্ষ ঘনমিটার বায়ু বিশুদ্ধ করার ক্ষমতা রাখে বলেও জানাচ্ছেন দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের কর্মকর্তারা।

তাজমহলের সাদা মার্বেল দীর্ঘদিন ধরে বায়ু দূষণের শিকার হওয়ায় তা মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়ে ছিল রাজ্য প্রশাসন সহ পর্যটন বিভাগের। বায়ুদূষণের বাড়বাড়ন্তের জেরে দূষিত বায়ু কণা গুলি দীর্ঘদিন ধরে ক্ষতিগ্রস্ত করে চলেছে বিশ্বের সাতটি বিস্ময়কর স্মৃতিসৌধের মধ্যে অন্যতম এই তাজমহলকে। এই সমস্ত ক্ষতির হাত থেকে রক্ষার জন্য তাজমহলের সামনে এয়ার পিউরিফায়ার ভ্যান বসানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছে। যা অন্তত ৩০০ মিটার ব্যাসার্ধের এলাকাজুড়ে ১৫ লক্ষ ঘনমিটার বায়ু পরিশোধন করবে। ভ্যানটি কাজ করবে অন্তত ৮ঘণ্টা।  দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের তরফে জানানো হয়েছে, এই মুহূর্তে তাজমহলের সামনে এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স মাপার জন্য কোনও যন্ত্র নেই। তাই ওই দুটি এয়ার পিউরিফায়ার কতটা কাজ করছে, কতটা বায়ু পরশোধিত হচ্ছে, তার চুলচেরা হিসেব এখনই পাওয়া সম্ভব নয়। তবে রবিবার বিকেল পর্যন্ত দিল্লির এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স প্রায় ৫০০ ছুঁয়েছে।

উত্তরপ্রদেশের দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের আঞ্চলিক কর্মকর্তা ভুবন যাদব জানান, ‘ বর্তমান পরিস্থিতি এবং বায়ুর গুণগত মানের ধারাবাহিক অবনতির কথা মাথায় রেখে তাজমহলের পশ্চিম গেটে একটি চলমান এয়ার পিউরিফায়ার ভ্যান মোতায়েন করা হয়েছে।’ পাশাপাশির দূষণের জেরে তাজমহলের স্বাস্থ্যের বিষয়েও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি।

দীপাবলির পরই বায়ু দূষণের কবলে পড়ে নাভিশ্বাস ওঠার জোগাড় উত্তর ভারতের একাধিক শহরের বাসিন্দাদের। রাজধানী ও সংলগ্ন বিস্তীর্ণ এলাকায় বিপর্যস্ত সড়ক ও পরিবহন ব্যবস্থা। বন্ধ রয়েছে একাধিক দূর পাল্লার উড়ানও। বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত ইতিমধ্যেই সমস্ত স্কুল কলেজগুলিতে ছুটি ঘোষণা করেছে দিল্লি প্রশাসন।

Source: The Daily Sun

Photo: Collected

SalamToday কন্টেন্ট পাওয়া যাবেঃ